মুভমেন্ট পাসের জন্য প্রথম ঘণ্টায় সোয়া লাখ আবেদন

লকডাউনে জরুরি বিশেষ প্রয়োজনে যাতায়াত নিশ্চিত করতে বাংলাদেশ পু’লিশ চালু করেছে মুভমেন্ট পাস অ্যাপ। বিধি-নিষে'ধ চলাকালে ঘরের বাইরে একান্ত প্রয়োজনে যেতে হলে এই ‘পাস’ সংগ্রহ করতে হবে। মঙ্গলবার অ্যাপটি উ'দ্ধোধনের প্রথম ঘণ্টায় ১ লাখ ২৫ হাজার আবেদন জমা পড়েছে। আর প্রতি মিনিটে ১৫ হাজার আবেদন জমা পড়ছে।

আজ বেলা সাড়ে ১১টায় বাংলাদেশ পু’লিশ অডিটরিয়াম রাজারবাগে করো’’না সংক্রমণ রোধকল্পে বিধি-নিষে'ধ চলাকালে জরুরি প্রয়োজনে মুভমেন্ট পাস অ্যাপের শুভ উদ্বোধন করেন আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ।

দেশের যে কোনো নাগরিক ওই অ্যাপের মাধ্যমে কয়েকটি তথ্য সরবরাহ করে খুব সহ’জেই এ ‘পাস’ সংগ্রহ করতে পারবেন। এ অ্যাপটি ব্যবহার করলে একদিকে যেমন জরুরি প্রয়োজনে নাগরিকদের চলাচল নিশ্চিত করা যাবে, অন্যদিকে মানুষের অ’প্রয়োজনীয় ও অনিয়ন্ত্রিত চলাচলও বন্ধ করা যাবে।

https://movementpass.police.gov.bd/ ওয়েবসাইটে ঢুকে পাসের জন্য আবেদন করতে হবে।

শুরুতে একটি সক্রিয় মোবাইল ফোন নম্বর দিতে হবে। আবেদনকারী কোথা থেকে কোথায় যাবেন, তা জানতে চাওয়া হবে। সেইসব তথ্য ধাপে ধাপে দিতে হবে। এরপর আবেদনকারীর একটি ছবি আপলোড করে ফর্মটি জমা দিতে হবে।

জমা দেওয়া ফর্মে আবেদনকারী দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মুভমেন্ট পাস ইস্যু করা হবে। ওয়েবসাইট থেকেই পাসটি ডাউনলোড করা যাবে। লকডাউনে চলাচলের সময় ক'র্তব্যরত পু’লিশ সদস্যদের পাস দেখাতে হবে।

মুভমেন্ট পাসের জন্য যেসব তথ্য লাগবে

আবেদনকারী কোন থা’না এলাকা থেকে কোন থা’না এলাকায় যাবেন তা উল্লেখ করতে হবে, আবেদনকারীর নাম, লি’ঙ্গ, বয়স, ভ্রমণের কারণ, পাস ব্যবহারের তারিখ ও সময়, পাসের মেয়াদ শেষের তারিখ ও সময়, পরিচয়পত্র, ছবি।

পরিচয়পত্র হিসেবে জাতীয় পরিচয়পত্র, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট, জন্মনিবন্ধন বা স্টুডেন্ট আইডি কার্ড ব্যবহার করা যাবে।

Facebook Comments
Back to top button