আমাদের আর কাঁদার শক্তিও নাই, ইয়া আল্লাহ আমাদের মাফ করে দেন: মুশতাকের স্ত্রী’ লিপা

কারা'গারে লেখক মুশতাকের মৃ'’ত্যুর পর তার স্ত্রী লিপা আক্তার গণমাধ্যমকে বলেছেন, মুশতাক বলল, ও ভালো আছে। কোনো সমস্যা নেই। ওর একটা ছোট ভুঁড়িও হয়েছে, যেটা কখনো ছিল না। আমি তো কাল 'বিকেল পর্যন্ত জানি ও সুস্থ আছে। এটা কী’ হলো?

দীর্ঘদিন স্বামী কারা'গারে থাকায় চিন্তিত স্ত্রী লিপা আক্তার সম্প্রতি মানসিক রোগে আ’ক্রা'ন্ত হয়েছেন বলেও খবর বেরিয়েছে। লিপা আক্তারের ফেসবুক টাইম'লাইনে গত ১০ মাসে অর্থাৎ মুশতাক আহমেদ গ্রে'’'প্ত ার হবার পর থেকে একের পর এক শুধু স্বামীকে নিয়ে স্মৃ'’তিচারণমূলক বিভিন্ন পোস্ট ছাড়া অন্য কিছু পাওয়া যায়নি।

মুশতাক গ্রে'’'প্ত ার হবার প্রায় এক মাস পর ০২/০৫/২০ তারিখে লিপা লেখেনঃ ‘আমা'দের আর কাঁদার শক্তিও নাই। ইয়া আল্লাহ আমা'দের মাফ করে দেন, আমিন’। আর গ্রে'’'প্ত ারের ঠিক ২০০ দিন পর ১৯/১১/২০ তারিখে লিপা কা’ন্নামাখা ব্যাকগ্রাউন্ডে ইংরেজিতে লেখেনঃ ‘২০০ দিন’। গেলো বছরের ৫ ডিসেম্বর মুশতাকের জন্ম’দিনে তার হাস্যোজ্জ্বল একটি ছবি পোস্ট করে সবার কাছে দোয়া চেয়ে লিপা লেখেনঃ ‘আজ মানুষটার জন্ম’দিন।

ওর জন্য দোয়া করবেন’। এরপর সেদিনই আরেক পোস্টে লেখেনঃ ‘সবাইকে অ'সংখ্য ধন্যবাদ, যারা মুশতাককে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, দোয়া করছেন। আম’রা সত্যি আপ্লুত এইভাবে আপনাদের দোয়া আর স্নেহের ছায়ায় থাকতে চাই। আল্লাহ তালা সবার নেক দোয়া কবুল করুন। আমিন’।

৩০ ডিসেম্বর মুশতাকসহ পারিবারিক একটি ছবি পোস্ট করে স্মৃ'’তিচারণ করে লিপা লেখেনঃ ‘ভালো লাগার সময়গু'লো..’। এ বছরের শুরুতে ২১ জানুয়ারি দু’জনের ছবি পোস্ট করে আশাবাদী লিপা লেখেনঃ ‘সময়ের কা’টা ফিরিয়ে দিক সেইসব দিনগু'’লি…’। পরেরদিন দু’জনের আরেকটি ছবি পোস্ট করে ইংরেজিতে লেখেনঃ ‘সেই দিনগু'লো মিস করছি’। ২৬ জানুয়ারি একটি ছবি পোস্ট করেন লিপা যেখানে দেখা যায় মুশতাক ক্যামেরা দিয়ে তার এবং অন্য কয়েকজনের ছবি তুলছেন।

Facebook Comments
Back to top button