যে কারনে পিপিই পরে রাস্তায় ভিক্ষা করছেন এই মহিলা স্বাস্থ্যকর্মী

অনেকেরই প্রথম দেখাতে মনে 'হতে পারে করো’নাকে প্রতি'হত করার জন্য পিপিই পরে আছেন এই মহিলা। চোখের সামনে এমন দৃশ্য দেখে থমকে যাচ্ছিলেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। যেন বুঝেই উঠতে পারছিলেন না যা দেখছেন, তা ঠিক কিনা।

রোববার (১৪ ফেব্রুয়ারি) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে তিনি মূলত পিপিই পড়ে রাস্তায় ভিক্ষা করছেন। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের ওড়িষ্যাতে।

চোখের সামনে এই দৃশ্য দেখে অনেকেই বিশ্বা'স করতে পারছিলেন না। ভারত কেন, তৃতীয় বিশ্বের যে কোনো দেশেই ভিক্ষুকদের দেখা পাওয়াটা একটা সাধারণ ঘটনা। কিন্তু পিপিই পরে ভিক্ষা নিঃসন্দে'হে অভাবনীয়। আর এভাবেই ওড়িষ্যার এক স্বাস্থ্যকর্মীকে দেখা গেল ভিক্ষা করতে।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা গেছে এটা আসলে এক ধরনের ‘অ'ভিনব’ প্রতিবাদ। ওই মহিলার নাম অশ্বিনী পাড়ি। ওড়িষ্যার ভদ্রক জে'লার চরম্পা গ্রামের বাসিন্দা তিনি। অশ্বিনী কাঠগড়ায় তুলেছেন ওড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের সরকারকে।

তার অ'ভিযোগ, রাজ্যে করো’না মহামা'রি প্রকো'প ের সময় তার মতো বহু স্বাস্থ্যকর্মীকে কাজে নিয়োগ করা হয়েছিল। কিন্তু এখন পরিস্থিতি ঠিক হওয়ার পর আচমকাই কাজ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে তাদের। এরপরই এই প্রতিবাদের পথ বেছে নিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘করো’না ছড়িয়ে পড়ার পরে যখন রাজ্যের অবস্থা বেশ খারাপ ছিল, সে সময় রাজ্য সরকার আমা'দের ‘কোভিড যো'দ্ধা’ হিসেবে নিয়োগ করেছিল। আমর'া আমা'দের পরিবার ও নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে করো’না রোগীদের সেবা করেছিলাম। নয়মাস পরে সরকার কোনো রকম 'বিকল্প কাজের সুযোগ না দিয়ে আমা'দের বাদ দিয়ে দিয়েছে।’

ভারতীয় গণমাধ্যম থেকে জানা গেছে, করো’নার প্রকো'প বাড়ার পরে এমন আট' হাজার কর্মীকে নিয়োগ করেছিল ওড়িষ্যা সরকার। তাদের চুক্তিভিত্তিক ভাবেই নিয়োগ করা হয়েছিল। কিন্তু বছরের শেষে তাদের চুক্তি শেষ হওয়ার পরে আর তা পুনর্নবীকরণ করা হয়নি।

এ কারণে নতুন বছরে রাতারাতি বেকার হয়ে পড়েছেন এই সকল মহিলা স্বাস্থ্যকর্মী। এদিকে ওড়িষ্যায় সংক্রমণের হারও অনেকটাই নিম্নমুখী। এই পরিস্থিতিতে সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, তহবিলে টান পড়াতেই আর নতুন চুক্তি করা সম্ভব হচ্ছে না।

অশ্বিনী হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, যদি সরকার আগামী দিনেও তাদের কথায় কান না দেয়, তবে রাজ্যজুড়ে আন্দোলনে নামবেন তারা। তখন আর পিপিই কিট পরে কাউকে ভিক্ষা করতে দেখাটা কোনো 'বিক্ষি'প্ত দৃশ্য হয়ে থাকবে না। রাজ্যজুড়ে ছড়িয়ে পড়বে এমন দৃশ্য। বিভিন্ন রাস্তায় চোখে পড়বে পিপিই কিট পরিহিত ভিক্ষুকদের।

Facebook Comments
Back to top button