কুরআনে চুমু খেয়ে অবমাননার প্রতিবাদ জানালেন সুইডেনের অমুসলিম নারী

চুমু খেয়ে কুরআনুল কারীম অবমাননার প্রতিবাদে জানালেন অমুসলিম এক সুইডিশ নারী। চুমু খাওয়ার দৃশ্যটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ফেসবুক ও অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায় সুইডেনের মালমো শহরে সং'ঘটিত কুরআনুল কারীম পোড়ানোর প্রতিবাদে ওই অমুসলিম নারী কুরআনে চুমু খান। আর বলেন, ‘সুইডিশ নারী মালমো শহরের মুসলিম'দের সঙ্গে একত্বতা ঘোষণা করেছে।’

ফেসবুক পেজে বলা হয়, ওই নারী বলছে, আমি জানি না বইটি কি সম্প’র্কে। কিন্তু মানবতা ও অনুকম্পার জন্য আমি তোমা'দের সঙ্গে একাত্বতা ঘোষণা করছি। বইটি যেহেতু তোমা'দের কাছে গু'রুত্ব, তাই আমার কাছেও তা গু'রুত্বপূর্ণ। বইটি চুমু দিয়ে আমি গর্বিত।

সুইডিশ নারী আরো বলেন, ডেনিশ ব্যক্তি সুইডেনে যা করেছে তাতে আমর'া সন্তু'ষ্ট নই। সুইডেনের পত্রিকা নারীটির ছবি প্রকাশ করলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সবার দৃ'ষ্টি কাড়ে।

চুমু খেয়ে কুরআনুল কারীম অবমাননার প্র’তিবাদে জানালেন অমুসলিম এক সুইডিশ নারী। চুমু খাওয়ার দৃশ্যটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ফেসবুক ও অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা যায় সুইডেনের মালমো শহরে সং'ঘটিত কুরআনুল কারীম পোড়ানোর প্র’তিবাদে ওই অমুসলিম নারী কুরআনে চুমু খান। আর বলেন, ‘সুইডিশ নারী মালমো শহরের মুসলিম'দের সঙ্গে একত্বতা ঘোষণা করেছে।’

ফেসবুক পেজে বলা হয়, ওই নারী বলছে, আমি জানি না বইটি কি সম্পর্কে। কিন্তু মানবতা ও অনুকম্পার জন্য আমি তোমা'দের সঙ্গে একাত্বতা ঘোষণা করছি। বইটি যেহেতু তোমা'দের কাছে গু'রুত্ব, তাই আমার কাছেও তা গু'রুত্বপূর্ণ। বইটি চুমু দিয়ে আমি গর্বিত।

সুইডিশ না’রী আরো বলেন, ডেনিশ ব্যক্তি সুইডেনে যা করেছে তাতে আমর'া সন্তু'ষ্ট নই। সুইডেনের পত্রিকা নারীটির ছবি প্রকাশ করলে তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সবার দৃ'ষ্টি কাড়ে।

Facebook Comments
Back to top button