স্বাস্থ্যের কর্মকর্তারা চেয়ারে বসতেই উঠে গেলেন সাংবাদিকরা

দৈনিক প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামকে হে'নস্তা করে গ্রে'ফতারের প্রতিবাদে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ব্রিফিং বয়কটের ঘোষণা দিয়েছেন সাংবাদিকরা। এরই অংশ হিসেবে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তিনজন অতিরিক্তি সচিব ব্রিফিং করতে আসলে তা বয়কট করে তারা উঠে যান।

মঙ্গলবার (১৮ মে) বেলা ১১টায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের বি'ষয়ে ব্রিফিংয়ের কথা থাকলেও স্বাস্থের কর্মক'র্তারা সম্মেলনকক্ষে প্রবেশ করেন ১১টা ২০ মিনিটে।

এরপরই বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের (বিএসআরএফ) সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ সংবাদ সম্মেলন বয়কট ঘোষণা করে সবাইকে সম্মেলন কেন্দ্র 'ত্যাগ করার অনুরোধ জানান। এরপর সেখান থেকে চলে যান সাংবাদিকরা।

তিনি বলেন, গতকাল রোজিনা ইসলামের বি'ষয়ে কথা বলতে এবং ঘটনা জানতে আমর'া দীর্ঘ সময় স্বাস্থ্য সচিবের রুমের সামনে অ’পেক্ষা করেছি, তিনি দেখা করেননি। তিনি আমা'দের বারবার অ’পমান করেছেন। আজকের এই ব্রিফিং আমর'া বয়কট করছি। পরবর্তী কর্মসূচি আমা'দের বিএসআরএফের জরুরি সভা শেষে নেতৃবৃন্দ সি'দ্ধান্ত নেবেন।

তার এই ঘোষণার পর সব সাংবাদিক স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ব্রিফিং বয়কট করে বেরিয়ে যান। এ সময় বিএসআরএফের অর্থ সম্পাদক মাসউদুল হক ও কার্যনির্বাহী সদস্য মোরসালীন বাবলা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে আজ সকালে বাংলাদেশ বিএসআরএফের সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞ'প্ত িতে এই ব্রিফিং বয়কটের সি'দ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

এতে বলা হয়, দৈনিক প্রথম আলোর সিনিয়র রিপোর্টার ও বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরামের (বিএসআরএফ) সদস্য রোজিনা ইসলামকে হে'নস্তা করে গ্রে'ফতারের প্রতিবাদে আজকের (মঙ্গলবার) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আয়োজিত বেলা ১১টার সংবাদ সম্মেলন বয়কটের সি'দ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পরবর্তী কর্মসূচি কার্যনির্বাহী কমিটির আজকের জরুরি সভা থেকে ঘোষণা করা হবে। এ বি'ষয়ে সবার সহযোগিতা কামনা করছে বিএসআরএফ।

Facebook Comments
Back to top button