২০ হাজার ভোটের ব্যবধানে হেরেছে বনির প্রেমিকা কৌশানী

সায়নী ঘোষের মতো তৃণমূল কংগ্রে'সের আরেক তারকা প্রার্থী কৌশানীও হে’রেছেন পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে। বিজেপির হেভিওয়েট প্রার্থী মুকুল রায়ের কাছে ২০ হাজার ভোটের ব্যবধানে হে’রেছেন তিনি। আজীবন রাজনীতি করলেও ২০২১-এ প্রথম নির্বাচনী জয়ের স্বাদ পেলেন মুকুল রায়। নদিয়ার কৃষ্ণনগর উত্তর থেকে বিজেপি প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করেছেন তিনি। সেখানে তার প্রধান প্রতিদ্ব’ন্দ্বী ছিলেন তৃণমূলের তারকা প্রার্থী কৌশানী মুখোপাধ্যায়। রাজনীতিতে সদ্য হাতেখ’ড়ি হওয়া নায়িকাকে ২০ হাজারের বেশি ভো’টে পরাজিত করলেন মুকুল।

মমতা ব্যানার্জি যখন কংগ্রে'স ছেড়ে তৃণমূল গঠন করেন, সেই সময় তার সঙ্গে কং’গ্রে'স ছেড়ে’ বেরিয়ে আসেন মুকুল। ১৯৯৮ সালে যখন তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা হয়, সেই সময় দলের প্রতিষ্ঠা-পত্রে যারা স্বাক্ষর করেছিলেন, মুকুল তাদের মধ্যে অন্যতম। ২০০১ সালে উত্তর ২৪ পরগণার জগদ্দল থেকে তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে ভোটে দাঁড়ান তিনি। কিন্তু হরিপদ বিশ্বা'সের কাছে পরাজিত হন। তার পর আর নির্বাচনে প্রতিদ্ব’ন্দ্বিতা করতে দেখা যায়নি তাকে।

বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার পর ২০ বছর পর এবার ফের ভোটের ময়দানে নামেন মুকুল রায়। তাতেই কাটলো জয়ের খরা। ২০১৭ সালে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপি-তে যোগ দিয়েছিলেন মুকুল। তার পর যত সময় এগিয়েছে, ততই বিজেপি-র কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের ঘনি’ষ্ঠ হয়ে উঠেছেন তিনি। দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতির দায়িত্বও পান।

২০২১-এ তার ভোটে নামাটা এক প্রকার অ’প্র'ত্যা’শিতই ছিল। তবে এবার ভোটের ফল বের হওয়ার পর দেখা গেল, পদ্মশিবির থেকে নীলবাড়ির লড়াইয়ে যেসব ‘হেভিওয়েট’রা নাম লিখিয়েছিলেন, তাদের মধ্যে যে ক’জন জয়ী হয়েছেন, মুকুল তার মধ্যে অন্যতম।

Facebook Comments
Back to top button