ক’রোনায় নরেন্দ্র মোদির চাচির মৃ’ত্যু

করো’নার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে ভারতে। প্রাণঘা'তী এই ভাইরাসের তাণ্ডবে দেশটির বিপর্যস্ত অবস্থা। করো’না পরিস্থিতি সামাল দিয়ে গিয়ে একেবারে হিমশিম অবস্থা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। এর মধ্যেই খারাপ খবর পেলেন।

করো’নায় আ'ক্রা'ন্ত হয়ে মোদির চাচি নর্ম'দাবেন মোদির মৃ'ত্যু হয়েছে। তার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। ১০ দিন আগে সিভিল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাকে। সেখানে তার করো’নাভাইরাসের চিকিৎসা চলছিল।

প্রধানমন্ত্রীর ছোট ভাই প্রহ্নাদ মোদি জানিয়েছেন, তাদের চাচিকে ১০ দিন আগে সিভিল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। করো’নাভাইরাস সংক্রমণের জন্য তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। সোমবার রাতে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায়ই তার মৃ'ত্যু হয়েছে। ফলে মোদি পরিবারে শোক নেমে এসেছে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় করো’নাভাইরাসে রেকর্ড সংখ্যক মৃ'ত্যু ও সংক্রমণের সাক্ষী হয়েছে ভারত। এই সময়ের মধ্যে দেশটিতে মা'রা গেছে ৩ হাজার ২৯৩ জন করো’না রোগী। ভারতে করো’নার ইতিহাসে এটিই একদিনে সর্বোচ্চ মৃ'ত্যুর রেকর্ড।

এ নিয়ে দেশটিতে মোট মৃ'ত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২ লাখ ১ হাজার ৮৭ জনে। আর নতুন করে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে রেকর্ড ৩ লাখ ৬০ হাজার ৯৬০ জনের শরীরে। ফলে ভারতে মোট করো’না আ'ক্রা'ন্তের সংখ্যা ১ কোটি ৭৯ লাখ ৯৭ হাজার ২৬৭।

বুধবার (২৮ এপ্রিল) সকালে কেন্দ্রীয় সরকার প্রচারিত স্বাস্থ্য বুলেটিনের বরাতে এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির গণমাধ্যমগু'লো।
গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে যথাক্রমে- মহারা'ষ্ট্রে ৬৬ হাজার ৩৫৮, উত্তর প্রদেশ ৩২ হাজার ৯২১ জন, কেরালা ৩২ হাজার ৮১৯, কর্নাটক ৩১ হাজার ৮৩০ এবং দিল্লিতে ২৪ হাজার ১৪৯ জনের শরীরে। গত ২৪ ঘণ্টায় মোট সংক্রমণের ৫২ শতাংশই এই পাঁচটি রাজ্যে। আর সর্বোচ্চ ৮৯৫ জনের মৃ'ত্যু হয়েছে মহারা'ষ্ট্রে।

Facebook Comments
Back to top button