করোনা প্রতিরোধক ‘জায়নামাজ’ নিয়ে এলো ইন্দোনেশিয়া!

মহামারি করো’না ভাইরাস প্রতিরোধক জায়নামাজ তৈরি করেছে ইন্দোনেশিয়া। দেশটির পূর্ব জাভার ৫ পুচাং সুরাবায়া শহরের ওয়ারদাতুল উম্মাহ মোহাম্মা'দিয়া স্কুলের শিক্ষার্থীরা মুসলমানদের নামাজকে সহজ করতে ‘সাজানা’ নামে একটি করো’না প্রতিরোধক জায়নামাজ তৈরি করেছে।’ খবর মোহাম্মা'দিয়া ডটওআর ডটআইডি (MUHAMMADIYAH.OR.ID)।

জায়নামাজগু'লো ব্যবহারে নরম হলেও করো’নাভাইরাস সংক্রমণে উচচ ঝুঁকিও রয়েছে। মূলত জায়নামাজগু'লো নরম হলেও প্লাস্টিক দিয়ে তৈরি। যা সহজেই ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাসমুক্ত করতে তাৎক্ষণিক জী'বাণুনাশ'ক স্প্রে দ্বারা মুছে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন করা যায়।

সুরাবায়া ওয়ারদাতুল উম্মাহ মোহাম্মা'দিয়া স্কুলের হস্তশিল্প বি'ষয়ক একটি শিক্ষক জানিয়েছেন, প্লাস্টিকের তৈরি নরম এ জায়নামাজগু'লোর রঙ ম্লান হবে না। কারণ এটিতে নির্দি'ষ্ট রঙ ব্যবহার করা হয়েছে। গত ১৪ এপ্রিল তিনি জানান, যখন জায়নামাজগু'লো জীবাণূমুক্ত করার জন্য স্প্রে করা হবে তখন এগু'লোর রঙ ন'ষ্ট হবে না।

জায়নামাজগু'লো ব্যবহার উপযোগী ও আকর্ষণীয় করে তৈরি করতে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন চিত্রের ডিজাইন করেছে। বিভিন্ন ডিজাইনের এ জায়নামাজগু'লো প্রস্থে ৬০ সেন্টমিটার এবং লম্বায় ১২০ সেন্টিমিটার।

এছাড়া ‘সাজানা’ জায়নামাজগু'লোর নিচে ডান দিকে লেখা আছে-

– নামাজের পরে স্প্রে/জী'বাণুনাশ'ক দিয়ে পরিস্কার করুন (সেসুদা শোলাত সেম্প্রোট / ডিলাপ ডিসিনফেক্টান)।

– মাস্ক বা মুখোশ পরিধান করুন (আইও পাকাই মাস্কার)।

– সাবান দিয়ে হাত পরিস্কার করুন (কচি টাঙ্গান পাকাই সবুন দান)।

– সামাজিক দূরত্ব বজায় রা খু'ন (জাগা জারক সোসিয়াল)।

স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা ‘সাজানা’ জায়নামাজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাজারজাত করবে। রমজান মাসে এবং আগামী ঈদুল ফিতরে এটি 'বিক্রয়যোগ্য হবে বলেও জানানো হয়।

জায়নামাজ ‘সাজানা’ তৈরির মাধ্যমে স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা আশা করছে, তারা মুসলমানদের ইবাদত-বন্দেগিতে ভূমিকা রাখতে পারবে। এটি শিক্ষার্থীদের সৃজনশীল অর্থনৈতিক কর্ম পরিকল্পনার অংশ।

Facebook Comments
Back to top button