ফেনীতে পু’লিশের সঙ্গে যুবকের হাতাহাতি

লকডাউন চলাকালে ফেনীতে পু'লিশের সঙ্গে এক যুবকের হাতাহাতির ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়। শহরের ট্রাংক রোডের মডেল হাই স্কুলের সামনে ওই যুবককে আট'কের সময় পু'লিশের সঙ্গে হা বাগবিতণ্ডা করতে করতে দেখা যায়।

ভিডিওতে দেখা যায়, সদর উপজে'লার মোটবী ইউনিয়নের ভূঞারহাট এলাকার বাসিন্দা শ’হীদ মাস্কবিহীন রিকশাযোগে শহরের উকিলপাড়া থেকে ট্রাংক রোডের দিকে আসছিলেন। তার রিকশাটি মডেল স্কুলের সামনে ফেনী মডেল থা'নার দায়িত্বরত উপ পরিদর্শক (এসআই) যশোমন্ত মজুম'দারসহ পু'লিশ সদস্যরা গতিরোধ করে। কেন তার গতিরোধ করা হল বলে ওই যুবক চিৎকার করে বলতে থাকে- ‘অন্য রিকশা ছেড়ে দিছস। আমার রিকশা কেন ধ’রা হয়েছে।’ একপর্যায়ে তাকে রিকশা থেকে জোরপূর্বক নামানোর পর ওই যুবক গালমন্দ করতে থাকেন।

পু'লিশ তাকে ‘পাগল’ আখ্যা দিলে কেন পাগল বলা হয় তার কারণ জানতে চায় যুবক। তার হাতে হাতকড়া লাগানোর চে'ষ্টা করলে চার পু'লিশ সদস্যের সাথে ধস্তা'ধস্তি হয়। তখন ওই যুবক বারবার বলতে থাকে- ‘এ দেশ পু'লিশের দেশ।’

স্থানীয়রা জানায়, পু'লিশের সাথে মা'রামারিতে লি'প্ত হওয়া ওই যুবকের নাম শহিদ। তিনি ফেনী সদর উপজে'লার মোটবী ইউনিয়নের বাসিন্দা এবং যুবলীগের সক্রিয় সদস্য।

ফেনী মডেল থা'নার পু'লিশ পরিদর্শক (ত'দন্ত) মো. ওমর' হায়দার জানান, রোববার ফেনী শহরের ট্রাংক রোডস্থ মডেল স্কুলের সামনে থেকে অটক যুবক শ’হীদের মানসিক সমস্যা রয়েছে। তাকে হাজতখানায় রাখার পর শোরচিৎকার করে সবাইকে অ'স্থির করে তোলে। একপর্যায়ে তার স্বজনদের ঢেকে আনলে তারা মানসিক সমস্যার কথা জানায়। পরে মুচলেকা নিয়ে তাকে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

Facebook Comments
Back to top button