ওবায়দুল কাদেরের বাড়িতে কক’টেল হা’মলা

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জার গ্রামের বাড়িতে কক’টেল হাম’লার অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে।

শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১০টার দিকে বসুরহাট পৌরসভার রাজাপুরে গ্রামের বাড়িতে এই কক’টেল হাম’লার ঘটনা ঘটে বলে অ’ভিযোগ করেছেন কাদের মির্জা।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে মোটরসাইকেলযোগে ১০-১২ জনের একদল দু’র্বৃত্ত সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জার বাড়ির প্রধান ফটকে তিন-চারটি কক’টেল বি’স্ফো’রণ ঘটায়।

এসময় চারদিকে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। পরে আশপাশের লোকজন বের হলে দু’র্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। তবে এ হাম’লায় কোনো ধরনের ‘'হতা’'হতের ঘটনা ঘটেনি। এসময় কাদের মির্জা বসুরহাট পৌরভবনেই অবস্থান করছিলেন।

কাদের মির্জা জানান, বাদলের অনুসারী বাসস্ট্যান্ডের সবুজের নেতৃত্বে ৮-১০টা মোটরসাইকেল মহড়া নিয়ে আমা’র ছোটভাই সাহাদাত হোসেনকে হ’'ত্যার উদ্দেশ্যে পরপর পাঁচটা কক’টেল হাম’লা করা হয়। এতে দু’টি কক’টেলের বি’স্ফো’রণ ঘটে।

বাড়িতে থাকা ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই শাহাদাত হোসেন বলেন, রাত সাড়ে ১০টার দিকে বিভিন্ন পর্যায়ে ৭টা মোটরসাইকেলে করে দু’র্বৃত্তরা এসে কক’টেল নি’'ক্ষেপ করে পালিয়ে যায়।

কোম্পানীগঞ্জ থা’নার ভারপ্রা’'প্ত কর্মক’র্তা (ওসি) মীর জাহিদুল হক রনি বলেন, খবর পেয়ে কাদের মির্জা সাহেবের বাড়ির সামনের বসুরহাট-দুধমুখা সড়ক থেকে তিনটি অবি’স্ফো’রিত কক’টেল উ’'দ্ধার করা হয়েছে। মেয়র আবদুল কাদের মির্জার ছোটভাই সাহাদাত হোসেন দু’জনের নাম বলেছেন। তাদের আইনের আওতায় আনার চে’'ষ্টা চলছে। বিডি২৪লাইভ.কম

Facebook Comments
Back to top button