পাস নিয়ে যাচ্ছিলেন ওড়না ডেলিভারি দিতে, জরিমানা হাজার টাকা

শাহ আলম নামে একজন লকডাউনের মধ্যে মুভমেন্ট পাস নিয়ে মেয়েদের ওড়না ডেলিভারি দিতে যাচ্ছিলেন। তিনি অনলাইনের মাধ্যমে পোশাক ‘'বিক্রি করেন। এ সময় সাত দিনের বিধিনিষে'’ধে মানুষের অবাধ চলাচল নিয়ন্ত্রণে অ’ভিযান চালাচ্ছিলেন র‌্যাব’ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলা’শ কুমা’র বসু।

ম্যাজিস্ট্রেট শাহ আলমকে তাকে দাঁড় করিয়ে কেন বের হয়েছেন তা জানতে চান। এরপর পাস নিয়ে বের হলেও তার জবাব সন্তোষজনক না হওয়ায় শাহ আলমকে ১০০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর শাহবাগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

অ’ভিযান চলাকালে শাহ আলমের মোটরসাইকেলে থাকা ব্যাগ সম্পর্কে ম্যাজিস্ট্রেট জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এতে মেয়েদের ওড়না আছে। আমি নিউ মা’র্কেট এলাকায় যাব’ ডেলিভারির জন্য।’

অর্থদ’ণ্ড পাওয়া শাহ আলম জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমি অনলাইন ডেলিভারিকে জরুরি সেবা হিসেবেই জানতাম। তাই বের হয়েছিলাম।’

বেলা ১১টা থেকে পরিচালিত অ’ভিযানে মোট ১১ জনকে ৬৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। সড়কে চলাচলকারী অধিকাংশ লোকজনই ম্যাজিস্ট্রেটকে ‘হাসপাতালে যাব’’ বলতে দেখা গেছে।

অ’ভিযানের বি’ষয়ে ম্যাজিস্ট্রেট পলা’শ বসু জাগো নিউজকে বলেন, ‘আমর'’া প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের ১৮টি নির্দেশনা ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কঠোর নিষে'’ধাজ্ঞা বাস্তবায়নে অ’ভিযান চালাচ্ছি। অনেকেই সরকারি নিষে'’ধাজ্ঞা উপেক্ষা করে কম প্রয়োজনে বাইরে বের হচ্ছেন।

তাদের জরিমানা করা হচ্ছে। তবে আমা’দের মূল উদ্দেশ্য জরিমানা নয়, আমর'’া সংক্রমণ কমাতে মানুষকে সচেতন করতেই অ’ভিযান চালাচ্ছি।’

Facebook Comments
Back to top button