এবার পু’লিশের উদ্যোগে নির্মিত হচ্ছে ভাস্কর্য ‘করোনাযোদ্ধা’

পু’লিশ সদস্যের অবয়বে ফরিদপুরে ‘করো’’নাযো'দ্ধা’ নামে একটি ভাস্কর্য নির্মাণ করা হচ্ছে। ভাস্কর দুলালউদ্দিনের হাতে কংক্রিকে’টের এই ভাস্কর্যটি তৈরি হচ্ছে ফরিদপুর পু’লিশ অফিসার্স মেস ভবনের সামনে।

পু’লিশ জানায়, মেস ভবনের সামনে ৬ ফুট উচ্চতা বিশি'ষ্ট বেদির ওপর ভাস্কর্য ৩টি নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রতিটি ভাস্কর্যের দুরত্ব ৪ ফুট করে। বেদির মাঝে মূল যে ভাস্কর্যটি রয়েছে তার উচ্চতা ১২ ফুট।

জানা যায়, ভাস্কর্যটি একজন পু’লিশ সদস্যের অব্যবে তৈরি। তার এক হাতে ওয়াকিট’কি ও অন্যহাতে একটি হ্যান্ড মাইক। বাঁ পাশে রয়েছে পু’লিশের একজন নারী সদস্য, উচ্চতা ১১ ফুট। তার হাতে আছে মাস্ক। ডান পাশে রয়েছে পু’লিশের আরেক পু’রুষ সদস্য, উচ্চতা সাড়ে ১১ ফুট। তার হাতে হ্যান্ডস্যানিটাইজার। তিনটি ভাস্কর্যের মুখে সাঁটানো রয়েছে মাস্ক।

গত ২৫ ডিসেম্বর থেকে এটির নির্মাণ কাজ শুরু হয়। লো'হার ওপর কংক্রিটের ঢালাই দিয়ে নির্মিত আস্কর্যটির কাজ শেষ 'হতে আরও ১ মাস লাগবে।

ভাস্কর শেখ . দুলালউদ্দিন বলেন, করো’’না পরিস্থিতিতে পু’লিশ সত্যিকারের অর্থে হয়ে উঠেছিল করো’’নাযো'দ্ধা। সে জন্যই জে’লা পু’লিশের উদ্যোগে ‘করো’’নাযো'দ্ধা’ নামে এই ভাস্কর্য নির্মাণের আয়োজন।

ফরিদপুরের পু’লিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামান বলেন, ভবি'ষ্যতে হয়তো করো’’নাকে মেনে নিয়ে বসবাস করতে হবে। তখন এই ভাস্কর্য মানুষকে সচেতন 'হতে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে পথ দেখাবে। এ জন্য জে’লা পু’লিশের উদ্যোগে ‘করো’’নাযো'দ্ধা’ নামের এই ভাস্কর্য নির্মাণ করা হয়েছে।

Facebook Comments
Back to top button