এই দেশ কারও বাবার সম্পত্তি নয় : ইশরাক

ঢাকার অবিভক্ত সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইঞ্জিনিয়ার ইশরাক হোসেন বলেন, ‘এই দেশ কারও বাবার সম্পত্তি নয়, কোনো জমিদারের সম্পত্তি নয়, কোনো দলের সম্পত্তি নয়। এই দেশটা সবার। সবাইকে নিয়েই দেশের গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনব।’

খালেদা জিয়ার মুক্তি, রা'ষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের খেতাব বাতিল ও অ’পপ্রচারের বিরু'দ্ধে প্রতিবাদসহ বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে মঙ্গলবার (২ মা'র্চ) দুপুর ২টায় রাজশাহীর মা'দরাসা ময়দান সংল'গ্ন নাইস কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত বিএনপির মহাসমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

ইশরাক বলেন, ‘আমর'া পুনরায় তত্ত্বাবধায়ক সরকার পুনর্বহালের দাবি জানাই। সেই দাবি আ'দায় করে ছাড়ব, ইনশাআল্লাহ। সেই সঙ্গে পঞ্চদশ সংশোধনীও বাতিল চাই। যেখানে অন্যায়ভাবে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আইনকে বাতিল করা হয়েছিল।’

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতার ৫০ বছর পর যে দেশে আনন্দে স্বাধীনতা উদযাপনের কথা ছিল, সেখানে স্বাধীনতার ৫০ বছর পর এসে গু'ম, খু'ন, হ'ত্যা, ধxxণ, দুর্নীতি, জে'ল-জুলুম, মানুষের মৌলিক অধিকার হরণ, কথা বলার অধিকার হরণ করা হচ্ছে। করা হচ্ছে মানুষের ভোটাধিকার হরণ। এসব অন্যায়ের প্রতিবাদের বার্তা নিয়ে আপনাদের কাছে এসেছি।’

ইশরাক বলেন, ‘ডিজিটাল আইনের আওতায় এক সাংবাদিককে কারা'রু'দ্ধ করা হয়েছিল কিছুদিন আগেই। কিন্তু তাকে বিনা চিকিৎসায় কারা'গারে মৃ'ত্যুবরণ করতে হয়েছে। আপনারা আরও দেখেছেন, জনগণের দৃ'ষ্টি এড়ানোর জন্য নির্লজ্জভাবে স্বাধীনতার ৫০ বছর পর এসে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের খেতাব নিয়ে নাটক করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ২০১৩ সালের পর থেকে আজ পর্যন্ত প্রায় আড়াই কোটি ভোটার দেশে তৈরি হয়েছে। যারা ভোট কাকে বলে জানে না, নিজেদের ভোটটা আজও দিতে পারেনি। স্বাধীনতার ৫০ বছর পর আমর'া এমন দেশ চাই নাই।

সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির অন্যতম সদস্য ইকবাল হাসান মাহামুদ টুকু।

এছাড়া সমাবেশে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদে'ষ্টা ও সাবেক মেয়র মিজানুর রহমান মিনু, রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল হক মিলনসহ অঙ্গ সংগঠনের বিভিন্ন নেতাকর্মী ও বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাকর্মীরা।

Facebook Comments
Back to top button