বৃ’দ্ধের স’ঙ্গে ১৪ বছরের কি’শোরীর বিয়ে, র’ক্ষা পেতে পা’লিয়ে গেলেন হাসপাতালে

বৃ'দ্ধের সঙ্গে বাল্যবিয়ে থেকে র’ক্ষা পেতে গলাচিপা থেকে পা’লিয়ে দশমিনায় চলে আসা এক কিশোরীকে গু'’রুত’র আ’হ’ত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করেছেন এলাকাবাসী ও পু'লিশ। স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ও থা'না সূত্রে জানা গেছে, গলাচিপা উপজে'লার চর বিশ্বা'স ইউনিয়নের চর বিশ্বা'স গ্রামের মৃ'’ত শফিকুল ইসলামের মেয়ে নাজমা বেগম (১৪) বুধবার 'বিকালে দশমিনা উপজে'লার চরহোসনাবাদ এলাকায় সড়কে অ’জ্ঞা’ন হয়ে পড়েছিল। পরে স্থানীয়রা ও থা'না পু'লিশ কিশোরীকে উ’'দ্ধা’র করে দশমিনা হাসপাতালে ভর্তি করেছেন।

হাসপাতালে ভর্তি কিশোরী নাজমা জানায়, তার পিতা শফিকুল ইসলাম ‘মা”রা যাওয়ার পর মা অন্যত্র বিয়ে করেন। সে তার মামা'দের বাড়ি থেকে লেখাপড়া করত। তার মামা দুলাল সিকদার এক বৃ'দ্ধের সঙ্গে তার বিয়ের পাকা কথা দেন। এর প্র’তিবা’দ করায় তাকে ‘মা’র’ধ’র করেন মামা।

সে জানায়, এ ঘটনায় বাড়ি থেকে পা’লি’য়ে দশমিনা চলে এসে চরহোসনাবাদ সড়কের পাশে অ’জ্ঞা’ন হয়ে গিয়েছিল। পরে স্থানীয় মানুষ ও পু'লিশ তাকে উ’'দ্ধা’র করে দশমিনা হাসপাতালে ভ’র্তি করেন। এ ব্যাপারে গলাচিপার চরবিশ্বা'স ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বাবুল চৌধুরী জানান, দশমিনা থা'না পু'লিশের ফো’ন পেয়ে নাজমা'র মামা দুলাল সিকদারকে দশমিনায় পাঠিয়েছি।

দশমিনা থা'নার ওসি মো. জসীম জানান, মেয়েটিকে উ’'দ্ধা’র করে দশমিনা হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। মেয়েটির পরিবারকে সংবাদ পাঠানো হয়েছে; তারা এলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Facebook Comments
Back to top button