পু’লিশ গেল জলকা’মান নিয়ে, শিক্ষা’র্থীরা দিল লাল গোলাপ

রাজধানীর সায়েন্সল্যাব’ মোড়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা পু'লিশকে গো’লাপ ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। এ সময় শিক্ষার্থীরা ‘ছাত্র পু'লিশ ভাই ভাই, জল কামানের দরকার নাই’ স্লোগান দিতে থাকেন।পরীক্ষা স্থগিতের প্রতিবাদে টানা দুই দিন ধরে আন্দোলন করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীরা। দ্বিতীয় দিনের মতো বুধবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টায় শিক্ষার্থীরা রাজধানীর নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেয়।

পরে কয়েকশ শিক্ষার্থী সেখান থেকে ভাগ হয়ে দুপুরের দিকে সায়েন্সল্যাব’ মোড়ে অবস্থান নেয়। শিক্ষার্থীদের অবস্থান কর্মসূচির ফলে আশেপাশের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

‘'বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে সায়েন্সল্যাব’ মোড় থেকে পু'লিশ শিক্ষার্থীদের তুলে দিতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করে। এক পর্যায়ে জলকামান নিয়ে এগিয়ে যায় পু'লিশ। এ সময় শিক্ষার্থীরা উত্তেজিত না হয়ে পু'লিশকে ঘিরে ধরে এবং উপস্থিত প্রত্যেক পু'লিশ সদস্যকে একটি করে লাল গো’লাপ দেয়। পু'লিশও সেটি গ্রহণ করে থেমে যায়।

পরে ‘'বিকেল চারটার দিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এক বিজ্ঞ’'প্ত িতে বলা হয়, সাত কলেজের চলমান পরীক্ষা আগের মতোই চলবে। কোনো তারিখ পরিবর্তন হবে না। যে তারিখ ছিল ওই তারিখেই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের খবর পেয়ে পু'লিশ আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের জানায়। এরপর শিক্ষার্থীরা সড়ক ছেড়ে দেওয়ার সি’'দ্ধান্ত নেয়।

পু'লিশের রমনা বিভাগের উপ কমিশনার (ডিসি) সাজ্জাদুর রহমান বলেন, দাবি মেনে নেওয়ার সংবাদ শোনানোর পর শিক্ষার্থীরা সড়ক ছেড়ে দিয়েছে। তারা সড়ক থেকে ঘরে ফিরেছে। এরপর যান চলাচল শুরু হয়েছে। যদিও রাস্তায় অনেক চাপ। দেরিতে হলেও সড়কে যান চলাচল স্বাভা’'বিক হবে।

Facebook Comments
Back to top button