ওদের জন্য দিনটি আনন্দের!

রোববার, সকাল পৌনে ৭টা। লাল রংয়ের একটি বালতিভর্তি লাল গো'লাপ নিয়ে ঘু'ম ঘু'ম চোখে রাজধানীর পলা'শী মোড়ে রাস্তায় ধীর পায়ে হাঁটছিল আট' বছরের ছোট্ট শিশু মুন্নী। গায়ের লাল রংয়ের শাল ও লাল গো'লাপের আভা শিশটির চোখেমুখে। প্রতিদিন একটু বেলা করে ঘু'ম থেকে উঠলেও আজ ২১ ফেব্রুয়ারি উপলক্ষে ফুল 'বিক্রি করার জন্য তার মা ফজরের নামাজের পরপর অন্ধকার থাকতেই ডেকে তুলে দেয়। ভোর থেকে পাঁচটি গো'লাপ প্রতিটি ২০টা দামে ১০০ টাকায় 'বিক্রি করতে পেরে খুব খুশি মুন্নী।

ভাষা আন্দোলন কিংবা ২১ ফেব্রুয়ারি সম্পর্কে কিছুই জানে না মুন্নী। শুধু জানে আজ অনেকগু'লো গো'লাপ 'বিক্রি করতে পারলে দুপুরে ভালো খাবার দেবে মা। সঙ্গে ২০ টাকা নগদও দেবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। আর তাইতো ঘু'ম ঘু'ম চোখেও সে পলা'শী মোড়ে ভাষা শ’হীদদের প্রতি শ্র'দ্ধা জানাতে আসা লোকজনের কাছে গিয়ে ‘গো'লাপ আছে, কম দামে ভালো গো'লাপ’ ই'ত্যাদি বলে তা 'বিক্রির চে'ষ্টা করছিল।

মুন্নী একা নয়, তার মতো আরও কয়েকজন শিশু কাঁকডাকা ভোর থেকে পলা'শীর মোড়ে ঘুরে ঘুরে ফুল 'বিক্রির চে'ষ্টা করছিল। ওদেরই একজন শিশু তোফা। ‘আমা'র ভাইয়ের র'ক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি, আমি কি ভুলিতে পারি’ লেখা হেডক্যাপ লাগিয়ে এদিকে-সেদিক ঘুরে ফুল 'বিক্রির চে'ষ্টা করছিল। কেউ শিশু দেখে একদামে আবার কেউবা ২০ টাকার ফুলেও দামা'দামি করছিল। শিশুদের সবাইকে কোরাস সুরে একদাম হাঁকতে ও 'বিক্রি করতে দেখা যায়।

ফুল 'বিক্রিরত শিশু তোফাকে হঠাৎ সমবয়সীদের সঙ্গ ছেড়ে দ্রুত পা চালিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে দেখা যায়। ফুটপাত থেকে এক বৃ'দ্ধাকে হাত ধরে রাস্তা পার করাতে দেখা যায়। বৃ'দ্ধার কোলে কয়েকমাস বয়সী একটি শিশু। তোফার হাত ধরে বৃ'দ্ধা ধীরলয়ে রাস্তা পার হচ্ছিল। একটু লক্ষ করতেই দেখা যায় বৃ'দ্ধা অন্ধ। বৃ'দ্ধাকে রাস্তার একধারে পৌঁছে দিয়েই তোফা আবার ফুল 'বিক্রির কাজে মনোযোগী হয়ে ওঠে। একসঙ্গে তিনটি ফুল ১০০ টাকায় 'বিক্রি করতে পেরে তাকে আনন্দে দৌড়ে মায়ের কাছে টাকা'টা পৌঁছে দিতে দেখা যায়।

Facebook Comments
Back to top button