শিক্ষকের বুদ্ধিমত্তায় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল সাড়ে তিনশ যাত্রী

মা’দ্রাসা শিক্ষক সাদ্দাম হোসেনের বু’'দ্ধিমত্তায় রক্ষা পেলেন নীল সাগর আন্তঃনগর এক্সপ্রেসের প্রায় সাড়ে তিনশ যাত্রী। সাদ্দাম চর ঘাটিনা গ্রামের ওয়াজেদ আলীর ছেলে।

শনিবার ঈশ্বরদী-ঢাকা রেলপথে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজে’লার চর ঘাটিনা গ্রামের পাশে রেলপথের একটি সংযোগ খুলে স্থানচ্যুত হয়ে যায়। ঘটনাটি চোখে পড়ে ওই রেলপথ দিয়ে হেঁটে আসা সাদ্দাম হোসেনের।

এ সময় স্থানীয় সাহারুল নামের এক ছেলের সহযোগিতায় তিনি দ্রুত একটি লাল কাপড় সংগ্রহ করে রেলপথের উপর টানিয়ে দাঁড়িয়ে যান। এর পাঁচ মিনিট পর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ঢাকা থেকে নীলফামা’রীগামী ট্রেনটি উল্লাপাড়া রেলস্টেশন অ’ভিমুখে আসছিল।

লাল পতাকা দেখে ট্রেনটি দাঁড়িয়ে যায়। এতে রক্ষা পান ওই ট্রেনের প্রায় সাড়ে তিনশ যাত্রী উল্লাপাড়া রেলওয়ে স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাস্টার রফিকুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রেলওয়ের পিডব্ল–আই-এর কর্মীদের ডেকে রেলপথের সংযোগ বিচ্ছিন'’্ন হয়ে যাওয়ার অংশ সংস্কারের ব্যবস্থা নেওয়া হয়।

প্রায় আধা ঘণ্টা পর ট্রেনটি গন্তব্যের উদ্দেশে চলে যায়। পরে অ’পর ট্রেনগু'’লো স্বাভা’'বিকভাবেই চলাচল করছে।

Facebook Comments
Back to top button