হাতির পিঠে চড়ে বিয়ের আসরে সম্রাট, অবশেষে পালিয়ে রক্ষা!

রের নাম সম্রাট। তাই সার্কাসের হাতি ভাড়া করে তাতে সম্রাটের মতো চড়ে বিয়ে করতে এসেছিলেন। কিন্তু কনের বয়স কম। এ খবর পেয়ে পু’লিশ রওনা দেন ঘটনাস্থলের দিকে। আর পু’লিশ আসার খবর পেয়ে কোনো রকমে বিয়ের কাজ শেষ করে সবাই চ’ম্পট দেন। শেষ পর্যন্ত ঘটনাস্থলে গিয়ে পু’লিশ দেখে বাড়ি জনশূন্য।

শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যার দিকে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজে’লার ভাঙামোড় ইউনিয়নের আট'িয়াবাড়ী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন ভাঙামোড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান বাবু।

কনের ভ'গ্নিপতি হাফিজুল ইস’লাম জানান, পার্শ্ববর্তী নাগেশ্বরী উপজে’লার নেওয়াশী এলাকার ব'দ্ধু খানের পুত্র সম্রাট (২২) এর সঙ্গে ফুলবাড়ী উপজে’লার ভাঙামোড় ইউনিয়নের আট'িয়াবাড়ী এলাকার দুলাল মিয়ার ১৬ বছর বয়সী কন্যা ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী আদুরী আক্তারের বিয়ে ঠিক হয়।

এ অবস্থায় ফুলবাড়ী বড়ভিটা কলেজ মাঠে লায়ন সার্কাসের প্রদর্শনীর একটি হাতি ১৫ হাজার টাকায় ভাড়া করা হয়। সেই হাতিতে চড়ে বর নেওয়াশী থেকে রওনা দেয় কনের বাড়ির উদ্দেশে। পথে হাতির পিঠে বর দেখে উৎসুক মানুষের ভিড় জমে ওঠে। খবরটি দ্রুত চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে।

ভাঙামোড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লুৎফর রহমান বাবু জানান, হাতির পিঠে চড়ে বর আসার কথা শুনে তার মধ্যেও কৌতূহলের সৃ'ষ্টি হয়। সেই কৌতূহল থেকে জানতে পারেন কনের বয়স কম। বি'ষয়টি নিশ্চিত 'হতে, গ্রাম পু’লিশ সফিকুলকে কনের বাড়িতে পাঠান। তখন খবর আসে এটি বাল্যবিয়ে।

এরপর তিনি ঘটনাটি উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা মো. তৌহিদুর রহমানকে অবহিত করেন। উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তা সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে যেতে পু’লিশকে নির্দেশনা দেন। কিন্তু বিয়েবাড়িতে পু’লিশ গিয়ে কাউকে পায়নি বলে জানান ফুলবাড়ী থা’নার পরিদর্শক (ত’দন্ত) সারোয়ার পারভেজ। বলেন, তারা আগেই বিয়ে শেষ করে সট’কে পড়েছে।

এ বি'ষয়ে শনিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) মোবাইল ফোনে ফুলবাড়ীর উপজে’লা নির্বাহী কর্মক’র্তার সঙ্গে কথা হলে তিনি জানান, ঘটনাটি খতিয়ে দেখে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Facebook Comments
Back to top button