আমাদের বিবাহ বিচ্ছেদ কেন হইসে, জেনে কি করবেনঃ ফারিয়া

বিয়ের দুই বছর পূর্ণ হওয়ার আগেই সংসার জীবনের ইতি টানেন জনপ্রিয় অ’ভিনেত্রী শবনম ফারিয়া। গত বছরের শেষ দিকে সাবেক স্বামী হারুন অর রশীদ অ’পুর সঙ্গে বিচ্ছেদ হয় ফারিয়ার। ওই সময় বিয়ে-বিচ্ছেদ নিয়ে মুখরোচক খবর না ছড়াতে সবার প্রতি আহ্বানও জানান ফারিয়া।

অ’পুকে নিয়ে অন্যদের কটাক্ষ দেখে খুব চটেছেন ফারিয়া। এর প্রতিবাদ স্বরূপ ফেসবুকে এক স্ট্যাটাসও দিয়েছেন ফারিয়া। ফেসবুকের স্টাট্যাস পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধ’রা হলোঃ-

অ’পুর কমেন্ট সেকশনে মানুষের কমেন্ট পড়ে আমি নির্বাক তাকিয়ে থাকি! অ’পুর প্রতি মন থেকে আমা’র কৃতজ্ঞতা তার এই সহনশীলতার জন্য। তার এই ধৈর্যের জন্য তার প্রতি আমা’র সম্মান অনেক অংশে বেড়ে গেল…

ভাই, আমা'দের বিবাহ বিচ্ছেদ কেন হইসে আপনি জেনে কি করবেন? আম’রা যদি আলাদা হয়ে ভালো থাকি, আপনার কি কোনো সমস্যা হচ্ছে? নাকি গিফ্ট পাঠাবেন কোনো? আর যদি খা’রাপও থাকি আপনি কি আজকে রাতে না খেয়ে থাকবেন?

আমি পাবলিক ফিগার তাই আপনারা অনেকেই ভেবে নেন, আমাকে যা খুশি বলা যাব'ে। ফাইন, আমি মেনে নিয়েছি। যা তা বলেন। সাংবাদিক ভাই’রা যা মন চায় শিরোনামে নিউজ করেন… সব ঠিক আছে।

কিন্তু এই ছে’লেটাকে কেন? কি মজা অন্যকে ছোট করে? কেন একটা মানুষ যে বিবাহ বিচ্ছেদের মতো একটা বি'ষয়ের মধ্য দিয়ে গেছে ৩ মাসও হয়নি তাকে অ’প্রয়োজনীয় কমেন্ট করে হ্যারাস করা। এইটা কেমন ধরনের ফান?

অন্যের ক’'ষ্ট দেখে একটা মানুষের কী’ভাবে আনন্দ লাগতে পারে। এইটা তো অ’সুস্থতা। দেশে এত অ’সুস্থ মানুষ! বিশ্বা’স করেন, বিবাহ বিচ্ছেদ এর চেয়ে ক’'ষ্টের কিছু একটা মানুষের জীবনে ঘটতে পারে না। প্রিয় মানুষের মৃ'’ত্যু অনেক ক’'ষ্টের কিন্তু জীবিত প্রিয় মানুষের সঙ্গে বিচ্ছেদ কত ক’'ষ্টের, যে তার মধ্য দিয়ে না যায় সে বুঝবে না। দয়া করে এবার ক্ষ'মা করেন।

আম’রা আলাদা হয়ে ভালো আছি, আমা'দের ভালো থাকতে দেন। আমা'দের নিয়ে আপনাদের চিন্তিত 'হতে হবে না। চিন্তিত হবার জন্যে আমা'দের পরিবার, আ'ত্মীয়-স্বজন এবং বন্ধু বান্ধব আছে। আপনারা নিজের চরিত্র, পরিবার এবং সংসারের দিকে মন দেন। যাতে আপনাদের সংসার টিকে যায়! আপনারা সম্ভবত নিজেদের জীবনেও সুখী না, তাই অন্যের ক’'ষ্টে এত আনন্দ হয়।

Facebook Comments
Back to top button