গোটা উপজেলায় খুঁজে পাওয়া গেল না টিকা নেওয়ার লোক!

সারা দেশে আজ রবিবার করো’’নাভাইরাস টিকাদান কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। জনপ্রতিনিধি, প্রশাসনিক কর্মক’র্তা অথবা স্বাস্থ্যকর্মীরা টিকা নিয়ে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেছেন। কিন্তু পাবনার ফরিদপুরে উদ্বোধনের দিন কেউ টিকা নেয়নি বলে জানা গেছে।

এদিন পৌনে তিনটার পরেও টিকা দিতে নিবন্ধনধারীদের স’ঙ্গে যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছে উপজে’লা স্বাস্থ্য দ’'প্ত র। বি’ষয়টি নিশ্চিত করেছেন উপজে’লা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মক’র্তা ডাক্তার ওমর'’ ফারুক মীর।

জানা যায়, করো’’নাভাইরাস টিকাদানের জন্য ফরিদপুর উপজে’লা স্বাস্থ্য দ’'প্ত র গত শনিবারের মধ্যে সব আয়োজন সম্পন্ন করে। এর মধ্যে টিকা নিতে উপজে’লার প্রায় ২০০ জন নিবন্ধন সম্পন্ন করেন। আজ রবিবার সকালে সারা দেশের মতো এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করো’’নাভাইরাস টিকাদান কর্মসূচি উদ্বোধনের কথা ছিল। তবে নিবন্ধিত ব্যক্তিরা টিকা নিতে অনাগ্রহ প্রকাশ করায় এদিন দুপুর ২টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করা সম্ভব হয়নি। এমনকি উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্যকর্মীরাও টিকা নিতে অনীহা প্রকাশ করেছেন।

এদিকে এদিন দুপুর ২টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত টিকা দিতে অনেক নিবন্ধিতদের স’ঙ্গে যোগাযোগ করেছেন উপজে’লা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মক’র্তারা। তবে কেউ-ই স্বাস্থ্য কর্মক’র্তাদের আহ্বানে সাড়া দেয়নি। এর পরেও হাল ছাড়েননি স্বাস্থ্য কর্মক’র্তারা। সকাল ৮টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত টিকাদানের সময় নির্ধারিত থাকলেও নিবন্ধিত ব্যক্তিদের টিকা দিতে যোগাযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন উপজে’লা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মক’র্তা।

ফরিদপুর উপজে’লা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মক’র্তা ডাক্তার ওমর'’ ফারুক মীর বলেন, টিকা নেওয়ার জন্য অনেকেই নিবন্ধন করেছেন। কিন্তু কিছু বিশেষ কারণে নির্দি’'ষ্ট সময়ের মধ্যে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করা সম্ভব হয়নি। আশা করছি, সময় পার হলেও টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করতে পারব।

Facebook Comments
Back to top button