ইসরাইলের স’ঙ্গে শান্তিচুক্তি হারাম বললেন ২০০ আলেম

‘ইসরাইলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের শান্তিচুক্তি হারাম’- এমনই ফতোয়া দিয়েছেন আফ্রিকার দেশ মৌরিতানিয়া। গত রোববার (৩১ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় দেশটির রাজধানি নোয়াকোচটের ঐতিহ্যবাহী আল-তৌফিক মসজিদে আয়োজিত একটি সেমিনারে শীর্ষস্থানীয় ২০০ ইমাম, আলেম এবং মুফতিগণ এ ফতোয়ায় স্বাক্ষর করেন। খবর আল-মায়াদিন।

শান্তিচুক্তির নামে ইসরাইলের সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সম্পর্ক স্থাপনকে ইসলামের দৃ'ষ্টিতে হারাম বলে ফতোয়া দিয়েছেন আফ্রিকার দেশ মৌরিতানিয়ার ইমাম, আলেম এবং মুফতিরা। ফতোয়ায় স্বাক্ষরকারীদের অন্যতম ব্যক্তিত্ব হলেন- মৌরিতানিয়ার ওলামায়ে কেরাম প্র'শিক্ষণ কেন্দ্রের প্রধান শেখ মুহাম্ম'দ আল হাসান ওলদ আল-দাদ্দো।

ফতোয়ায় স্বাক্ষরের আগে শীর্ষস্থানীয় আলেমর'া বলেন, ফিলিস্তিনের ভূমি ও মুসলিম'দের প্রথম কেবলা মসজিদে আকসাকে অ’পহরণ ও দখলদার ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন কোনো ক্রমেই বৈধ নয়। বরং ‘দখলদার ইয়াহুদিদের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনকে নিকৃ'ষ্টতম হারাম’ আখ্যা দিয়েছেন।

শীর্ষস্থানীয় আলেমর'া আরও বলেন, বস্তুবাদী ইয়াহুদিদের সঙ্গে সম্পর্ক করার অর্থই হলো তাদের আনুগত্য করা। ইসলাম ও মুসলমানদের শত্রুর সঙ্গে জোটব'দ্ধ হওয়া। ইসলাম ও মুসলমানদের বিরু'দ্ধে বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাদের সহযোগিতা করার শামিল।

অথচ আল্লাহ তাআলা পবিত্র কুরআনের বিধর্মীদের সঙ্গে বন্ধুত্ব ও সম্পর্ক স্থাপনকে সম্পূর্ণরুপে কঠোরভাবে নি'ষি'দ্ধ করেছেন। আল্লাহ তাআলা বলেন-
يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُواْ لاَ تَتَّخِذُواْ الْيَهُودَ وَالنَّصَارَى أَوْلِيَاء بَعْضُهُمْ أَوْلِيَاء بَعْضٍ وَمَن يَتَوَلَّهُم مِّنكُمْ فَإِنَّهُ مِنْهُمْ إِنَّ اللّهَ لاَ يَهْدِي الْقَوْمَ الظَّالِمِينَ
হে মুমিণগণ! তোমর'া ইয়াহুদী ও খ্রিস্টাদের (কাউকে) বন্ধু হিসাবে গ্রহণ কর না। তারা একে অ’পরের বন্ধু। তোমা'দের মধ্যে যে তাদের সঙ্গে বন্ধুত্ব করবে, সে তাদেরই অন্তর্ভুক্ত। আল্লাহ জালেম'দের (কাউকে) পথ প্রদর্শন করেন না।’ (সুরা মায়েদা : আয়াত ৫১)

এছাড়াও দেশটির আলেম-ইমাম-মুফতিরা তাদের সরকারকে ইসরাইলের সঙ্গে আগে থেকেই যে সম্পর্ক ছিন'্নের ঘোষণা দিয়েছিলো তার ওপর অটল থাকার আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, ইসরাইল-আমেরিকার সংবাদ মাধ্যম প্রকাশ করে যে, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন, সুদান এবং মর'ক্কোর পরেই মৌরিতানিয়া ও ইন্দোনেশিয়া ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের চুক্তি করবে। এ সংবাদের প্রতিবাদে দেশটির আলেমর'া এ ফতোয়া দেয়। কেননা মৌরতানিয়া ২০০৯ সালে গাজার বিরু'দ্ধে যু'দ্ধের সময় ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন'্ন করে।

Facebook Comments
Back to top button