বৌভাতে মাংস কম দেয়ায় মা’রামা’রি, প্রা’ণ গেল বরের চাচার

বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজে'লার চাঁদপাশা ইউনিয়নের দক্ষিণ রাফিয়াদি গ্রামে বৌভাত অনুষ্ঠানে মাংস কম দেয়াকে কেন্দ্র করে বর ও কনেপক্ষের মধ্যে মা'রামা'রির ঘটনা ঘটেছে। এতে আজাহার মীর (৬৫) নামের এক বৃ'দ্ধের মৃ'ত্যু হয়েছে। মা'রামা'রিতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আ'হত হয়েছেন।

এ ঘটনার পরপরই পু'লিশ বৌভাত অনুষ্ঠান থেকে নারী-পু’রুষসহ ১৬ জনকে আট'ক করেছে। মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) 'বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। মা'রা যাওয়া আজাহার মীর দক্ষিণ রাফিয়াদি গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন। তিনি সম্পর্কে বরের চাচা হন।

এলাকাবাসী ও পু'লিশ সূত্রে জানা যায়, বরিশাল নগরীর কাউনিয়া সাবান ফ্যা'ক্টরি এলাকার আবুল কালাম হাওলাদারের মেয়ে রুনা বেগমের সঙ্গে দুদিন আগে দক্ষিণ রফিয়াদি গ্রামের মোতাহার মীরের ছেলে সজিব মীরের বিয়ে হয়। দুপুরে সজিব মীরের বাড়িতে বৌভাত অনুষ্ঠান হয়।

খাওয়ার সময় মাংস কম দেয়ার অ'ভিযোগ নিয়ে বরের বাড়ির লোকজনের সঙ্গে কনের বাড়ি থেকে আসা মেহমানদের প্রথমে কথা কা'টাকাটি হয়। একপর্যায়ে হাতাহাতি ও ধাক্কাধাক্কি হয়। পরবর্তীতে তারা মা'রামা'রিতে জড়িয়ে পড়েন। এতে উভয় পক্ষের অন্তত ১০ জন আ'হত হন। এ সময় বরের চাচা আজাহার মীর আঘা'তপ্রা'প্ত হয়ে ঘটনাস্থলেই মৃ'ত্যুবরণ করেন।

বরিশাল মেট্রোপলিটন বিমান বন্দর থা'না পু'লিশের পরিদর্শক শাহ মো. ফয়সাল হোসেন জানান, ঘটনার পরপরই পু'লিশ বৌভাত অনুষ্ঠান থেকে নারী-পু’রুষসহ ১৬ জনকে আট'ক করেছে।

তিনি আরও জানান, আজাহার মীরের মর'দে'হ উ'দ্ধার করে ময়নাত'দন্তের জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর'্গে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি মাম'লা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

Facebook Comments
Back to top button