সহবাস মানেই শরীরচর্চা, তথ্যটি কতটুকু সঠিক

শারীরিক সম্পর্ক কিংবা যৌ'’নমিলন স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্ককে আরও মজবুত করে। শুধু তাই নয়, নারী-পু’রুষের মধ্যকার এই সম্পর্ক পৃথিবীতে মানব অ’স্তিত্ব টিকিয়ে রাখার জন্য অনস্বীকার্য। সহ’বাস মানেই শরীরচর্চা, এই তথ্যটি কমবেশি আমরা সবাই জানি। তবে তথ্যটি সঠিক কিনা তা অনেকেরই অজানা।

জেনে রা খু’ন, সহ’বাস কেবল আনন্দ নয়, শরীরচর্চার মাধ্যমও ‘হতে পারে। আপনি জেনে বিস্মিত হবেন, ব্যায়ামে যেমন ক্যালরি ক্ষয় হয়, তেমনটি যৌ'’নকর্মে লি'প্ত হলেও ঘটে। কিন্তু প্রশ্ন হলো, এ সময় কতটুকু ক্যালরি পোড়ে?

গবেষকদের মতে, সহ’বাস হালকা বা পরিমিত শরীরচর্চার সমতুল্য ‘হতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে, দৌড়ালে বা জিমে ব্যায়াম করলে যত ক্যালরি ক্ষয় হয়, যৌ'’নকর্মে ততটা হয় না।

এর পরিমাণ নির্ভর করে ব্যক্তির ওজন, যৌ'’;নকর্মের স্থায়িত্ব ও অন্যান্য কিছু বি'ষয়ের ওপর। সহ’বাসে শুধু ক্যালরি পোড়ে না, স্বাস্থ্যের আরো অনেক উপকারও হয়। এখানে সাম্প্রতিক গবেষণার আলোকে বি'ষয়টি তুলে ধ’রা হলো।

একটি গবেষণা বলছে, সহ’বাসের সময় পু’রুষদের গড়ে ১০১ অথবা প্রতি মিনিটে ৪.২ ক্যালরি পুড়তে পারে। অন্যদিকে নারীদের গড়ে ৬৯ অথবা প্রতি মিনিটে ৩.২ ক্যালরি পুড়তে পারে। সুস্থ ও অল্প বয়সি নারী-পু’রুষের ওপর গবেষণাটি চালানো হয়। এই গড় নির্ণয়ে ফোরপ্লে থেকে অ;র্গা;জ;ম পর্যন্ত সময় বিবেচনা করা হয়েছে। ফোরপ্লে হলো শরীরের বিভিন্ন অংশে আদর-সোহাগে উত্তেজিত করে তোলা। অন্যদিকে অ’র্গা’জম হলো যৌ'’নসুখের চূড়ান্ত সীমা।

মন্ট্রিলে অবস্থিত ইউনিভার্সিটি অব কুইবেকের ডিপার্টমেন্ট অব এক্সারসাইজ সায়েন্সের অধ্যাপক অ্যান্টনি কারেলিস বলেন, সহ’বাসের সময় শরীর থেকে যে শক্তি ব্যয় হয় তা ব্যায়ামের তুলনায় উল্লেখযোগ্য নয়। এই গবেষণায় যারা অংশ নিয়েছেন তাদের ট্রে’ডমিলেও শরীরচর্চা করতে বলা হয়েছে। দেখা গেছে, পু’রুষদের প্রতি মিনিটে ৯.২ ক্যালরি এবং নারীদের প্রতি মিনিটে ৭.১ ক্যালরি পু’ড়েছে। অর্থাৎ ট্রে’ডমিলে শরীরচর্চায় সহ’বাসের তুলনায় দ্বিগুণ ক্যালরি পু’ড়েছে।

আরেকটি গবেষণায়ও অনুরূপ ফল পাওয়া গেছে। বয়স ৩০ এর ঘরে রয়েছে এমন পু’রুষদের ছয় মিনিটের সহ’বাসে মাত্র ২১ ক্যালরি পুড়তে পারে। ফোরপ্লে বাদ দিলে সহ’বাসের গড় স্থায়িত্ব হলো পাঁচ থেকে ছয় মিনিট। ব্যক্তিভেদে এর চেয়ে কম বা বেশি ক্যালরি ক্ষয় ‘হতে পারে।

যদিও সহ’বাসের সময় এর চেয়ে বেশি ক্যালরি পোড়ানোর উপায় রয়েছে। এজন্য আপনাকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। আপনার পজিশন ওপরে হলে বেশি নড়াচড়া হবে, ফলে শক্তির ক্ষয়ও বেশি হবে।

যদি চান নারীর বেশি ক্যালরি পুড়ুক, তাহলে কিছুক্ষণ পর আপনাকে নিচের পজিশনে চলে যেতে হবে। এভাবে উভয়েই উপকৃত হবেন।ডা. কারেলিসের মতে, সহ’বাসের সময় ঘাম নিঃসরণের মানে হলো বেশি ক্যালরি ক্ষয় হওয়া।

ইন্ডিয়ানা ইউনিভার্সিটি স্কুল অব পাবলিক হেলথের সে’ক্সুয়াল অ্যান্ড রিপ্রোডাক্টিভ হেলথের অধ্যাপক ডেবি হার্বেনিক সহ’বাসের সময় ক্যালরি পোড়াতে এমন সে’ক্স পজিশনে যেতে অনুৎসাহিত করেছেন। তিনি বলেন, সহ’বাসের অনেক পজিশন রয়েছে। কিন্তু লোকজনের প্রতি আমার পরামর্শ হলো, সেই পজিশনে সহ’বাস করুন যা উভয়কেই আনন্দ দেয়। এ সময় কত ক্যালরি পুড়বে তা বিবেচনা করবেন না।

তার মতে, ফোরপ্লে করতে করতে শরীরচর্চা করে নিলে ক্যালরি পোড়ানোর পাশাপাশি যৌ'’নমিলনও বেশ উপভোগ্য ‘হতে পারে।সহ’বাসের উল্লেখযোগ্য শারীরিক ও মানসিক উপকারিতা

ঘু’মের মান বাড়ায়, র'ক্তচাপ কমায়, ব্যথা উপশম করে, পু’রুষদের প্রোস্টেট ক্যান্সারের ঝুঁকি কমায়, নারীদের পেলভিস পেশী শক্তিশালী করে, রোগ দমনের ক্ষ’মতা বাড়ায়, মানসিক চাপ ও উদ্বেগ কমায়, মেজাজ ভালো রাখে এবং আত্মবিশ্বা’স বাড়ায়।

Back to top button