বাড়ির সামনে কোনো পুকুর নেই, ইউটিউব দেখে ঘরেই মাছ চাষ করে মাসে লাখ টাকা আয়!

অকরো’না এই আবহাওয়া দেশের অর্থনীতি একেবারে ভেঙ্গে পড়েছে । তার সাথে সাথে প্রতিদিন বেড়েই চলেছে বেকারের সংখ্যা । এমতাবস্থায় নতুন করে চাকরি পাওয়া মোটেও সহজ কাজ নয় । সে জন্য অনেকেই চাকরি আশা ছেড়ে দিয়ে মনোনিবেশ করেছে ব্যবসার কাজে ।

কিন্তু শেখানে লাগে বেশ মোটা অংকের পুঁজি । কিন্তু এমন বেশ কিছু ধরনের ব্যবসা রয়েছে যেখানে পুজি কম লাগবে কিন্তু লাভ হবে বেশি । আপনি নিশ্চয় ইতিমধ্যে জানতে আগ্রহী হয়ে পড়েছেন যে কি এমন ব্যবসা সেটি ?

আমি এই মুহূর্তে যে ব্যবসা কথা বলতে চলেছি সেই ব্যবসা কথা শুনলে আপনার হয়তো অনেক অবাক হবেন । তার পাশাপাশি হয়তো আপনারা মুখ ঘুরিয়ে নিতে পারেন এই ব্যবসার কথা শুনে । কারন আমি এই মুহূর্তে আপনাদের সামনে মাছ ব্যবসা কথা বলতে চলেছি ।

আপনি নিশ্চয়ই ভাববেন যে মাছ ব্যবসা করতে গেলে কত মোটা অংকের পুঁজি লাগবে ? কিন্তু বিশ্বা’স করুন একদমই স্বল্প পুঁজি নিয়ে শুরু করা যাবে এই ব্যবসা।

জলপাইগু'ড়ি চা বাগানে মহিলা শ্রমিক কল্পনা রায় স্বামী মা’রা যাওয়ার পর ছেলেকে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করার একটা প্রবল আগ্রহ ছিল তার মধ্যে। কিন্তু সংসারে অভাব-অনটন আগ্রহকে থামিয়ে রাখতে বা-ধ্য করছিলো । তিনি বারবার চাইছিলেন চা বাগানে পাশাপাশি কোনো একটি কাজে যুক্ত ‘'হতে ।

অবশেষে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে তিনি জানতে পারেন যে পুকুর না থাকা সত্বেও বাড়িতে মাছ চাষ করা যেতে পারে । বড় বড় চৌবাচ্চা বাড়ির উঠোনে তৈরি করে মাছ চাষ করা যে সম্ভব তিনি সেটি প্রথম ইউটিউব থেকে জানতে পারেন এবং সেই কাজের সাথে লি’'প্ত হন।

বহরমপুর থেকে পোনা মাছের চারা তিনি নিয়ে যান জলপাইগু'ড়িতে এবং উঠোনে তিনি চাষ করেন । প্রথম মাসে তিনি ৩০০০ মাছ কিনেছিলেন যার মূল্য পড়েছিল ৮ হাজার টাকা ।

এরপর সব কিছু ‘'বিক্রি করে তার হাতে লাভের পরিমাণ ছিল ৩০ হাজার টাকা এখন তার বাড়িতে বড় বড় তিনটি চৌবাচ্চার হয়েছে এবং সেখানে ১৫ হাজার মাছ রয়েছে । এই মুহূর্তের সেই টাকা দিয়ে ছেলের পড়াশুনার খরচ চালান । তিনি এই বছর ছেলে উচ্চমাধ্যমিক পাশ করল । কল্পনার মতন মানুষ অনেক মানুষের অনুপ্রেরণা ।

Facebook Comments
Back to top button