মানবিক অটোচালক! দুর্গতদের পাশে দাঁড়াতে অটোকেই বানিয়ে ফেললেন অ্যাম্বুলেন্স

এই পৃথিবীতে বিনোদন জগতটা অনেকটাই বড়। যেখানে নিত্যনতুক একেকজন তারকার আবির্ভাব হয়। তাদের সৌন্দর্য, আর অ’ভিনয় খুব সহজেই আমা’দের মনোমুগ্ধ করে তোলে। তাই তারা সহজেই পৌঁছে যায় আমা’দের প্রিয় নায়ক-নায়িকার তালিকায়। পর্দায় নায়কদের অ’ভিনয় যেন বাস্তবে জ্যান্ত করে তোলে।

এমন দৃশ্য পরিস্ফুটিত করে তোলে পর্দায়, যা দেখে আপনাদের চোখে জল আসতে বাধ্য। তখনই আপনারা মনে মনে ভাবতে থাকেন, কাশ যদি এরকম একজন নায়ক আমা’দের জীবনে পাই, তাহলে হয়তো ধন্য হয়ে যেতাম।

আপনাদের পছন্দের তালিকায় নিশ্চই এই নামগু'’লো আছেই, হৃত্’'বিক রোশন, সালমান খান, আমির খান, শাহরুখ খান, রনবীর কাপুর। এমনকি রাস্তাঘাটেও সুন্দর দেখতে ও চেহারার এরকম অনেক ছেলেই দেখতে পাওয়া যায়, হয়তো আপনারা উঁকি মে’রেও দেখেন!

এই গল্পটা শুধু আপনার ক্ষেত্রেই নয় এই গল্পটা প্রতিটি সাধারণ ঘরের মেয়েরই গল্প। তবে বর্তমানে এই সমস্ত সুপারহিরোদের জায়গা নিয়েছেন বাস্তবের সুপারহিরোরা। আসুন আজ একজন সুপারহিরোর কথা তুলে ধরি আপনাদের কাছে! তবে এনারও পদবি কিন্তু খান, নাম মোহাম্ম’দ জাভেদ খান।

না তাঁর গ্ল্যামা’র বা সিক্স প্যাক নেই, কিন্তু বিশাল বড়মাপের একটা মন বানিয়ে পাঠিয়েছে ভগবান তাঁকে। পৃথিবীতে এতবড় মাপের মনের অধিকার কিন্তু সচরাচর দেখা যায়না। তিনি পেশায় একজন অটোচালক।

নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলে তিনি, বলাই বাহুল্য তারও ছোটবেলা থেকেই অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যে দিয়েই কে’টেছে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ার অন্দরে তাঁরই একটি ভিডিও ঘুরপাক খাচ্ছে। যেখানে তাঁর হিরোগিরি স্প’'ষ্ট। আসল ঘটনাটি হল, তিনি নিজের অটোকে একেবারে অ্যাম্বুলেন্সে পরিবর্তন করছেন। কেননা এখন দেশজুড়ে শুধু একটাই আর্তনাদ সবার করো’না থেকে বাঁ’চার। এই কঠিন পরিস্থিতিতে হাসপাতালে বেডশূন্য, রোগীর জন্য ঠিকমত অ্যাম্বুলেন্স পাওয়া যাচ্ছেনা।

দেশজুড়ে যখন এম্বুলেন্সের অভাব, তখন নিজের অটোকেই অ্যাম্বুলেন্স বানিয়ে ভগবানের মতন উদয় হলেন এই অটোওয়ালাটি। আজ এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে কোন সিনেমা’র হিরোর থেকে কম নয় তিনি,

এই সমস্ত সামাজিক হিরোকে স্যালুট জানিয়েছেন সকল নেটিজেন। তিনি অটোর মধ্যেই ব্যবস্থা রেখেছেন অক্সিজেন সিলিন্ডারের। ফোন অন করে সারাক্ষণ দুর্গত মানুষের পাশে এসে দাঁড়াচ্ছেন তিনি, প্রয়োজনে তাঁর সঙ্গে সহজেই যোগাযোগ করতে পারেন রোগীর পরিবার। ফোন পাওয়া মাত্রই পেশেন্ট এবং তাদের লোকজনকে নিয়ে পৌঁছে যাচ্ছেন তিনি গন্তব্যস্থলে।

Facebook Comments
Back to top button