শক্তিশালী হলো মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর অবস্থান

পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতার দাবি করে যখন সরকার উৎখাত পরিকল্পনা করছেন আনোয়ার ইব্রাহিম, তখন গুরুত্বপূর্ণ রাজ্য সাবাহ-এর নির্বাচনে জয় পেয়েছে প্রধানমন্ত্রী মুহিদ্দিন ইয়াসিনের ক্ষমতাসীন জোট। আনোয়ার ইব্রাহিমের হুমকির প্রেক্ষাপটে তার সাত মাস বয়সী সরকারের জন্য এই নির্বাচনকে দেখা হচ্ছিল গণভোট হিসেবে।

নির্বাচনে তার জোট বিজয়ী হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী মুহিদ্দিনের অবস্থান শক্তিশালী হলো বলে মনে করা হচ্ছে। শনিবার অনুষ্ঠিত সাবাহ নির্বাচনে ৭৩টি আসনের মধ্যে মুহিদ্দিনের পেরিকাতান ন্যাশনাল (পিএন) জিতেছে ৩৮ আসনে। আগে এই রাজ্যটি ছিল বিরোধীদের দখলে।

কিন্তু সামান্য ব্যবধানে তাদের কাছ থেকে এই রাজ্যের নিয়ন্ত্রণ হাতছাড়া হয়ে যায়। এর আগে মুহিদ্দিন বলেছিলেন, সাবাহর নির্বাচনে বিজয় আগামী নির্বাচনের পথ তৈরি করে দেবে। কারণ, তার ক্ষমতাসীন জোট স্থিতিশীলতার দিক দিয়ে বড় এক অনিশ্চয়তার মুখে আছে।

পার্লামেন্টে মাত্র দুইটি আসনে তারা সংখ্যাগরিষ্ঠ। এই দুটি সমর্থন এদিক-ওদিক হলেই কাত হয়ে যেতে পারে সরকার। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা।

নির্বাচনের আগে বিশ্লেষকরা বলেছিলেন, যদি সাবাহ রাজ্যে ক্ষমতাসীনরা পরাজিত হয় তাহলে তার অর্থ হবে ভঙ্গুর জোট সরকারের ইতি।

উল্লেখ্য, নিজের দলের ভিতরে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদের বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ফন্দি এঁটে তাকে মার্চে ক্ষমতাচ্যুত করেন মুহিদ্দিন ইয়াসিন।

এরপর ক্ষমতায় আসেন তিনি। তার বিরোধীরা অভিযোগ করেন, তিনি ব্যালটের পরিবর্তে জোটের ভিতরে ফাটল ধরিয়ে ক্ষমতা চুরি করেছেন।

ওদিকে তার মিত্ররা শক্তিশালী ম্যান্ডেট অনুমোদন নিশ্চিত করতে আগাম ভোট দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করেছে কয়েক মাস হলো।

mzamin